জাতীয়

একজন মহান নেতা ছিলেন “বঙ্গবন্ধু”

অনলাইন ডেস্ক :

জাপানের প্রধানমন্ত্রীর পত্নী আকিয়ে আবে বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু ছিলেন একজন মহান নেতা। জাপানে গ্রাফিক নোভেল ‘মুজিব’ গ্রন্থের মোড়ক উম্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।বঙ্গবন্ধুর জীবনের ওপর ভিত্তি করে জাপানী ভাষায় গ্রাফিক নোভেল ‘মুজিব’ গ্রন্থটি প্রকাশ করা হয়। বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্ম জাপানী শিশু-কিশোরদের সামনে তুলে ধরতে এ গ্রন্থটি প্রকাশ করা হয়েছে।সোমবার সন্ধ্যায় টোকিওর বাংলাদেশ দূতাবাসের বঙ্গবন্ধু মিলনায়তনে জাঁকজমকপূর্ণ একটি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে জাপানি ভাষায় অনূদিত বইটির মোড়ক উন্মোচন করা হয়।অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জাপানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী তোশিকো আবে এবং গেস্ট অফ অনার হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ রেহানা। বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক এসময় উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া জাপানে নিযুক্ত বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূতগণ, জাপানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং অন্যান্য দপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, ব্যবসায়ী প্রতিনিধি, জাপানের সুশীল সমাজের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ এবং উল্লেখযোগ্য সংখ্যক জাপান প্রবাসী বাংলাদেশী অংশগ্রহণ করেন।অনুষ্ঠানের শুরুতে অতিথিদের বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী উত্তরীয় পরিয়ে স্বাগত জানান জাপানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা। স্বাগত বক্তব্যে রাষ্ট্রদূত প্রধান অতিথি, বিশেষ অতিথি ও বঙ্গবন্ধু পরিবারের সদস্যদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান এবং উপস্থিত সকলকে এই অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করার জন্য ধন্যবাদ জানান।তিনি বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কর্মময় জীবনকে জাপানী শিশু-কিশোর ও জাপান প্রবাসী বাংলাদেশী সন্তানদের কাছে তুলে ধরার অভিপ্রায় নিয়ে এই উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। রাষ্ট্রদূত আরো বলেন, ইংরেজি ছাড়া প্রথম অন্য কোন বিদেশী ভাষা হিসাবে জাপানিতে গ্রাফিক নভেল ‘মুজিব’ অনুবাদ করা হলো।আকিয়ে আবে বলেন, যেহেতু গ্রাফিক্স নভেল জাপানিদের খুব প্রিয় তাই জাপানি ভাষায় অনুদিত গ্রাফিক নভেল ‘মুজিব’ তাঁর সম্পর্কে জাপানের শিশু-কিশোরদের অবহিত করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। তিনি বঙ্গবন্ধুর প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানান।জাপানের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী তোশিকো আবে বঙ্গবন্ধুর প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে আশা প্রকাশ করেন যে, অনুদিত গ্রাফিক্স নভেল এই মহান নেতার জীবন সম্পর্কে জানতে সহায়তা করবে।বইটির প্রকাশক রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক, গ্রফিক ‘মুজিব’ জাপানি ভাষায় অনুবাদ সফলভাবে সমাপ্ত করার জন্য বাংলাদেশ দূতাবাস, টোকিও এবং অনুবাদকদ্বয়কে ধন্যবাদ জানান। তিনি জাপানি অতিথিদের ধন্যবাদ জানান এবং আশা প্রকাশ করেন যে প্রকাশনাটি জাপানি শিশুদের কাছে বাংলাদেশের ইতিহাস ও জাতির পিতা সম্পর্কে জানতে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।বক্তব্য পর্ব শেষে প্রধান অতিথি, বিশেষ অতিথি ও বঙ্গবন্ধু পরিবারের সদস্যগণ, রাষ্ট্রদূত এবং বইটির অনুবাদকদ্বয় বইটির মোড়ক উন্মোচন করেন। অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধুর জীবন-সংগ্রাম নিয়ে রচিত একটি ‘টাইম-লাইন’ ভিডিও প্রদর্শন করা হয়।এসময় বইটির অনুবাদকদ্বয় প্রফেসর মাসাকি ওহাসি এবং ইমরান শরিফকে ক্রেস্ট প্রদান করে সম্মাননা জানানো হয়।এছাড়া জাপানি ভাষায় প্রকাশিত গ্রাফিক নভেল ‘মুজিব’ গ্রন্থটি টোকিওর সেক্রেড হার্ট স্কুলের ছাত্রছাত্রীদের কাছে পাঠ করে শুনানো হয়। বইপাঠ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু পরিবারের সদস্য শেখ রেহানা, রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক, রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা এবং বইটির অনুবাদকদ্বয়, শিল্পী রাশাদ ইমাম তন্ময়, শিবু কুমার শীল। গ্রাফিক্স নভেল ‘মুজিব’ গ্রন্থটি পর্যায়ক্রমে জাপানের বিভিন্ন স্কুলে পাঠ করা হবে এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও প্রবাসী বাঙালিদের মাঝে বিতরণ করা হবে।বাংলাদেশ দূতাবাস, টোকিওর উদ্যোগে গ্রাফিক নভেল ‘মুজিব’ জাপানি ভাষায় অনুবাদ ও প্রকাশনা করেছে গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন (সিআরআই)।সবশেষে অনুষ্ঠানে আগত অতিথিদের বাংলাদেশী ঐতিহ্যবাহী খাবার দিয়ে আপ্যায়ন করা হয়।

Related Articles