অপরাধ ও দূর্নীতিআইন-আদালতইসলামবিনোদনসম্পাদকীয়সারাদেশ

কুমিল্লায় প্রবাসীর স্ত্রীকে ৪দিন আটকে রেখে গণধর্ষণ

রবিউল আলম”কুমিল্লা প্রতিনিধি”
কুমিল্লার সদর দক্ষিণ উপজেলার সামবকশী এলাকায় এক প্রবাসীর স্ত্রীকে ৪দিন আটকে রেখে গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে সোমবার সদর দক্ষিণ মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ এ ঘটনায় অভিযুক্ত ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ৫ সেপ্টেম্বর ওমান প্রবাসীর স্ত্রী তার বাবার বাড়ি থেকে জেলার সদর দক্ষিণ উপজেলার সুয়াগাজী এলাকা থেকে উলুরচর এলাকায় স্বামীর বাড়িতে ফেরার উদ্দেশ্যে একটি সিএনজিতে ওঠেন।

সিএনজি চালক হাসান পথিমধ্যে সামবকশী এলাকায় এসে বল্লভপুর গ্রামের সহিদ নামে এক ব্যক্তির বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে ওই গৃহবধূকে আটকে রেখে টানা ৪দিন ধরে গণধর্ষণ করা হয়। এসময় ওই গৃহবধূর বিভিন্ন অশ্লীল ছবি তুলে ৫ লাখ টাকা দাবি করা হয়।

পরে গত ৮ সেপ্টেম্বর (শনিবার) ওই বাড়ি থেকে কৌশলে পালিয়ে যান গণধর্ষণের শিকার ওই গৃহবধূ। এ ঘটনায় ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে ৫ জনকে আসামি করে সোমবার সদর দক্ষিণ মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। পুলিশ এ মামলায় অভিযুক্ত ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে।

গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছেন- সদর দক্ষিণ উপজেলার রাজেন্দ্রপুর গ্রামের ছায়েদ আলীর ছেলে মাসুদ (২৮), একই এলাকার আবদুল বারেকের ছেলে মাসুদ (৩০), ধনপুর এলাকার চারু মিয়ার ছেলে সিএনজি চালক হাসান (২৬) এবং ধর্ষণে সহযোগিতা করায় বল্লভপুর গ্রামের সহিদ মিয়ার স্ত্রী স্বপ্না আক্তার (২৭)।

সদর দক্ষিণ মডেল থানার ওসি মো. মামুন অর রশিদ পিপিএম জানান, প্রবাসীর স্ত্রীকে গণধর্ষণের ঘটনায় ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অপর আসামি সহিদকে গ্রেফতারে পুলিশের চেষ্টা চলছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *