শিরোনাম

আজ বৃহস্পতিবার, ২২ অগাস্ট ২০১৯, ০৭:২৯ অপরাহ্


গিল্ড বাংলাদেশ টেকনোলজি মিডিয়া

গিল্ড বাংলাদেশ টেকনোলজি মিডিয়া

অনলাইন ডেস্ক :

তথ্যপ্রযুক্তি খাতের সাংবাদিকদের গড়া নতুন সংগঠন ‘টেকনোলজি মিডিয়া গিল্ড বাংলাদেশ (টিএমজিবি)’ যাত্রা করেছে। ২৯ এপ্রিল সন্ধ্যায় ঢাকার আগারগাঁওয়ের বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে একটি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এর যাত্রা শুরু হয়। সংগঠনটি তথ্যপ্রযুক্তি খাতের সাংবাদিকতার বিকাশ, উন্নয়ন ও গণমাধ্যম কর্মীদের কল্যাণে কাজ করবে বলে জানান উদ্যোক্তা ও সদস্যরা। সংগঠনটির যাত্রা উপলক্ষে ‘সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিজ্ঞাপন : গণমাধ্যমের সংকট ও করণীয়’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকের আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। তিনি বলেন, আমরা ডিজিটাল যুগে পা দিয়েছি। এখন এটিকে ঠেকিয়ে রাখা যাবে না। ফলে যে বিজ্ঞাপনের কথা হচ্ছে, সেখানে সামাজিক মাধ্যমগুলো আধিপত্য বিস্তার করতে পেরেছে, যা অন্য মাধ্যম পারেনি। তাই এখন বিজ্ঞাপন ভিন্ন মাধ্যমে যেতে শুরু করেছে। যেটা আমাদের চিহ্নিত করে কীভাবে সেটি ঠেকাব এবং নিজেদের কাছে নিয়ে আসব তা ভাবতে হবে। আলোচনার আগে এ বিষয়ে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেসের (বেসিস) সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবীর। তিনি তার প্রবন্ধে বলেন, আমাদের এখনকার বিজ্ঞাপনের কথা ভাবতে হবে। এখন গণমাধ্যমের বিজ্ঞাপনী ব্যয়ের কথা চিন্তা করলে দেখা যায় অধিকাংশই ডিজিটাল মার্কেটিংয়ে খরচ হচ্ছে। তাই প্রথাগত বিজ্ঞাপন থেকে ডিজিটাল বিজ্ঞাপনে ব্যয় কীভাবে কমানো যায় তা ভাবতে হবে। আর এতে কর কমানোর ব্যবস্থাও করতে হবে। বাংলাদেশ থেকে প্রতিবছর অনলাইনে বিজ্ঞাপনে প্রায় ২ হাজার কোটি টাকারও বেশি খরচ হয়। এমনকি মোট জনসংখ্যার দশ ভাগের মতো ডিজিটাল মাধ্যমে পণ্য ও সেবা গ্রহণ করছে। ফলে এ ক্ষেত্র যেমন প্রসারিত হচ্ছে, তেমনি আমাদের বিষয়টি নিয়েও ভাবতে হবে জোরশোরে।
প্যানেল আলোচনায় বেসরকারি টেলিভিশন মালিকদের সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অব টেলিভিশন চ্যানেল ওনার্সের (অ্যাটকো) সিনিয়র সহসভাপতি মোজাম্মেল হক বলেন, এখন বেশিরভাগ বিজ্ঞাপন চলে যাচ্ছে বিদেশে। আমাদের দেশীয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম তৈরি করতে হবে। তা জনপ্রিয় করতে হবে, যা চীন পেরেছে। সেটা করা গেলে ফেইসবুক, ইউটিউব, ইনস্টাগ্রামের মতো মাধ্যমগুলো দেশ থেকে আর বিজ্ঞাপন নিয়ে যেতে পারবে না।
মোবাইল ফোন সেবাদাতাদের সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অব মোবাইল টেলিকম অপারেটরস বাংলাদেশের (অ্যামটব) মহাসচিব ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) এসএম ফরহাদ বলেন, ইউটিউব, গুগল, ফেইসবুকে দেওয়া বিজ্ঞাপনের টাকা তো বিদেশে চলে যাচ্ছে। ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের জন্য নিজস্ব প্ল্যাটফর্ম তৈরি করতে হবে। এতে ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের বিজ্ঞাপন দেশের বাইরে আর যাবে না। অনুষ্ঠানে ডিজিটাল মাধ্যমে বিজ্ঞাপনী বিষয় নিয়ে বেশ কয়েকজন প্রশ্ন রাখেন আলোচকদের কাছে।
অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য দেন টিএমজিবির আহ্বায়ক মুহম্মদ খান। এছাড়া গোলটেবিল বৈঠকটি সঞ্চালনা করেন তথ্যপ্রযুক্তি খাতের বিশেষজ্ঞ টিআইএম নূরুল কবীর। আলোচনা শেষে কেক কেটে টিএমজিবির পথচলায় শুভকামনা করেন মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। অনুষ্ঠানে তথ্যপ্রযুক্তি ও টেলিকম খাতের বিশেষজ্ঞ, সংগঠক, ব্যবসায়ী- পেশাজীবী সংগঠনের নেতা, সরকারের সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সংস্থা ও প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন