1. admin@protidineralo.com : admin :
বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১২:০৪ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
কদমতলী থানা প্রেসক্লাবের ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান সম্পন্ন হাবিবুর রহমান মোল্লার চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকী আজ রাজধানীর কদমতলী থানাধীন রায়েরবাগে চোরাই পিকআপ সহ তিন সক্রিয় চোরাই সদস্যকে আটক করেছে কদমতলী থানা পুলিশ টঙ্গীবাড়ীতে নির্বাচনী দায়িত্ব পালনকালে সাংবাদিকের উপর হামলা পথচারীদের জন্য ঠান্ডা পানির ব্যবস্থা করেন শ্যামপুর থানা প্রেসক্লাব ঢাকা রাজধানী যাত্রাবাড়ী থেকে ১৫ জন পরিবহন চাঁদাবাজকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-১০ কদমতলীতে চিকিৎসা অবহেলায় নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ বিপুল পরিমাণ নকল জুস জব্দ, কারখানার মালিকের কারাদণ্ড জুরাইনে ডিএমপি ট্রাফিকের  উদ্যোগে শ্রমজীবী ও পথচারীদের  মাঝে বিশুদ্ধ  পানি ও খাবার স্যালাইন বিতরণ ডেমরায় ইষ্টার্ণ হাউজিংয়ে সাংবাদিকদের উপর সন্ত্রাসী হামলা।

টঙ্গীবাড়ীতে নির্বাচনী দায়িত্ব পালনকালে সাংবাদিকের উপর হামলা

  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ২৮ এপ্রিল, ২০২৪
  • ৩৩ বার পঠিত

মুন্সিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ-

মুন্সীগঞ্জে টগিবাড়ী উপজেলার আড়িয়ল ইউনিয়ন পরিষদ উপ নির্বাচনে জাল ভোট দেয়ার চিত্র ধারণ করতে গিয়ে হামলায় আহত হয়েছেন বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল ২৪ এর চিত্র সাংবাদিক এসময় তার কাছে থাকা ক্যামেরা ভাঙচুর করা হয় এবং হাতে থাকা একটি স্বর্ণের আংটি ছিনিয়ে নেয়া হয়।

ওই নির্বাচনে আনারস প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী দুলাল হালদার এই হামলার সূত্রপাত করেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

রোববার বেলা আড়াইটার দিকে ইউনিয়নটির উত্তর কুরমিরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

আহত সাংবাদিক আমির হোসেন (২৮) জানান, সকাল থেকেই প্রতিটি কেন্দ্রে আমরা চিত্র ধারণ করছিলাম। দুপুরে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা বশির আহমেদ ওই কেন্দ্রটি পরিদর্শনে আসেন। আমি ও আমার সহকর্মী চ্যানেল ২৪ এর মুন্সীগঞ্জ স্টাফ করেসপন্ডেট শুভ ঘোষ তার সাথে সেখানে যাই। কেন্দ্রে যাওয়ার পর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জাল ভোট দেয়ার সময় একজন নারীকে হাতেনাতে আটক করেন। সেই ছবি নেওয়ার সময় পাশ থেকে আনারস প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী দুলাল হালদার প্রথমে আমাকে বাঁধা দেন এবং পরে ক্ষিপ্ত হয়ে তিনি আমাকে মারতে তেড়ে আসেন। এরপর নির্বাচন কর্মকর্তা কেন্দ্র ত্যাগ করার সাথে সাথে ১০০-২০০ লোক কেন্দ্র দখল করার উদ্দেশ্যে কেন্দ্রে ঢুকে পড়েন। আমি সেই চিত্র ধারণ করতে থাকলে চেয়ারম্যান প্রার্থী দুলাল ‘ওই শালারে ধর’, ‘ওরে মার’ বলে চিৎকার চেচামেচি করে আমাকে মারধর শুরু করেন। এসময় তার সাথে থাকা ২০-৫০ জন মিলে আমার হাতে থাকা ক্যামেরা ভাঙচুর চালায় এবং আমার মাথায় কিল-ঘুষি দেয় এবং লাঠি দিয়ে গুরুতর আঘাত করে আমাকে অজ্ঞান করে ফেলে রেখে যায়। খবর পেয়ে আমার অন্য সহকর্মীরা উদ্ধার করে আমাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।’

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা বশির আহমেদ হামলার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ‘আমি ওই কেন্দ্র থেকে বের হওয়ার পর ভোটকেন্দ্রের বাইরে আমার চোখের সামনে সাংবাদিকের উপর হামলার ঘটনা ঘটে। তবে ভোটকেন্দ্রে এর প্রভাব পড়েনি। এ ঘটনায় আইন মোতাবেক ব্যবস্থা নেবে প্রশাসন’।

টংগিবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক কানিজ ফাতেমা জানান, আহতের মাথার পেছনে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে দুলাল হাওলাদারের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি।

মুন্সীগঞ্জ পুলিশ সুপার আসলাম খান বলেন, এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ পেয়েছি। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসক আবু জাফর রিপন মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে আহত সাংবাদিক আমির হোসেনকে দেখতে এসে বলেন, আমি জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা বশির আহমেদ এর কাছ থেকে বিষয়টি জেনেছি। এবিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Facebook Comments Box
এই জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৪ প্রতিদিনের আলো
Theme Customized By Shakil IT Park