নড়াইলে ছেলেধরা, মাদক ও ইভটিজিং বিরোধী স্টুডেন্ট কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের সমাবেশ অনুষ্ঠিত

নড়াইলে ছেলেধরা, মাদক ও ইভটিজিং বিরোধী স্টুডেন্ট কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের সমাবেশ অনুষ্ঠিত

উজ্জ্বল রায়, নড়াইল জেলা সংবাদদাতা: নড়াইলে ছেলেধরা, মাদক ও ইভটিজিং বিরোধী স্টুডেন্ট কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) সকালে নড়াইল সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয় ও নড়াইল সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে আলাদা আলাদাভাবে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন, পিপিএম (বার) এর সভাপতিত্বে এ সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নড়াইলের জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা। আমাদের নড়াইল জেলা প্রতিনিধি উজ্জ্বল রায় জানান, অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নড়াইল সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন, পিপিএম, নড়াইল সদর থানার ওসি (তদন্ত) হরিদাস পালসহ নড়াইল জেলা পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটের সদস্যবৃন্দ। এ সময় দুটি স্কুলে আলাদা আলাদাভাবে প্রধান শিক্ষক, সহকারি শিক্ষক-শিক্ষিকাবৃন্দ ও শিক্ষার্থীবৃন্দ স্বতঃস্ফূর্তভাবে এ সমাবেশে অংশগ্রহণ করে। গণমাধ্যমকর্মীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নড়াইল জেলা অনলাইন মিডিয়া ক্লাবের সভাপতি উজ্জ্বল রায়, ভোরের বাংলা পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক মোঃ হিমেল মোল্যাসহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ। মূলত ছেলে ধরা, পদ্মা সেতু নিয়ে গুজব ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নানা ধরনের অপপ্রচার এবং মাদকের অপব্যবহার সম্পর্কে শিক্ষক শিক্ষার্থীদের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষে নড়াইল জেলা পুলিশের উদ্যোগে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত কয়েকদিন ধরেই জেলা পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে মসজিদ, মন্দির, গীর্জা ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছেলে ধরা ও পদ্মা সেতুতে মাথা নিয়ে গুজবের ব্যাপারে সচেতনতামূলক সভা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সেই সাথে লিফলেট বিতরণ ও মাইকিং প্রচারণাও চলছে নড়াইল জেলার প্রত্যেকটি অলিগলিতে। সভায় নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন, পিপিএম (বার) ছেলে ধরা ও পদ্মা সেতু নিয়ে গুজবে কান না দেয়ার জন্য ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষক ও অভিভাবকদের প্রতি বিশেষ অনুরোধ জানান। সেই সাথে সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে গণপিটুনি না দিয়ে নড়াইল জেলা পুলিশকে অবগত করার জন্য তিনি নির্দেশনা প্রদান করেন।

শেয়ার করুন