সাভারে স্বেচ্ছাসেবকলীগের নাম ভাংঙ্গীয়ে চাদাঁবাজিকাল গ্রেপ্তার

সাভারে স্বেচ্ছাসেবকলীগের নাম ভাংঙ্গীয়ে চাদাঁবাজিকাল গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক :
ঢাকার সাভারে বিরুলিয়া রোডে জিকে গার্মেন্টসের পাশে  রবি মাংস দোকানের গলিতে এক সরকারী ডাক্তারের নির্মাণধীন আদাপাকা  বাড়িতে নির্মাণ শ্রমিক ও ঠিকাদারকে মারধর করে ৫ লাখ টাকা চাদাঁদাবী করে মোহাম্মদ পাভেল ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী।
গতকাল ২৮ জুলাই  সকালে পাভেল ও তার বাহিনী নির্মাণ শ্রমিক ও ঠিকাদার সুজনসহ তিনজনকে চাদাঁর দাবীতে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে।  সরেজমিনে গিয়ে স্থানীয়দের  সাথে কথা বলে জানা যায় পাভেল রাজনৈতিক দলের ব্যানার পোস্টার লাগিয়ে নিজেকে স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতা বলে পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন অপকর্ম করে আসছে দীর্ঘ দিন ধরে। বাড়ির মালিক রুমা বেগমের মা বলেন তার মেয়ে ফরিদপুরে  স্বামী নিয়ে বসবাস করে। রুমার স্বামী ফরিদপুর সরকারী মেডিকেলের আবাসিক ডাক্তার।  মেয়ের নির্মানাধীন  বাড়ির সকল প্রকার দেখাশোনা তার মা করে থাকেন।  গত কয়েকদিন ধরে স্থানীয় সন্ত্রাসী পাভেল তাদের কাছে ৫ লাখ টাকা চাঁদাদাবী করে আসছিলো। আহত  ঠিকাদার সুজন বলেন  গতকাল সকালে পাভেল ও তার বাহিনী তাদের উপর হামলা করে গুরুতর আহত করে। ঠিকাদার সুজন  সাভার মডেল থানায় চাদাঁবাজির অভিযোগ দিলে পুলিশ অভিযান চালিয়ে পাভেল কে আটক করে।
সাভার থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ জাহিদ বলেন বর্তমানে সাভার সদর ইউনিয়ন তাদের কোন কমিটি নেই।  তিনি আরও বলেন কেউ যদি দলের নাম ভাংঙ্গীয়ে অপকর্ম করে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
সাভার মডেল থানার উপপরিদর্শক মোফাজ্জল হোসেন বলেন চাদাঁবাজি মামলায় পাভেল কে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পাভেলসহ ওই মামলায় আরও ৫/৬ নাম উল্লেখ করে মামলাটি করে ঠিকাদার সুজন।
সাভার মডেল থানা পুলিশ পাভেল কে ৫ দিনের রিমান্ড চেয়ে আজ ঢাকার আদালতে পাঠিয়েছেন বলে জানান।

শেয়ার করুন