শিরোনাম
  পলাশবাড়ীতে সেচ্ছাসেবকলীগের শীতবস্ত্র বিতরণে কেন্দ্রীয় সভাপতি সম্পাদক       গাইবান্ধায় আমান উল্যাহ উচ্চ বিদ্যালয়ে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা       গাইবান্ধায় বোরো চাষে ব্যস্ত কৃষকরা       কুমিল্লার চান্দিনায় ধর্ষণের প্রতিবাদ করায় খুন হয় নাছির ।       তাড়াশে মৌলিক সাক্ষরতা প্রকল্পের ২য় পর্বের প্রশিক্ষণ উদ্বোধন       চান্দিনায় অজ্ঞাত নারীর মরদেহ উদ্ধার।       কালিয়াকৈরে শীর্ষ সন্ত্রাসী পিচ্ছি আকাশসহ গ্রেফতার ২       স্কাউটের মাধ্যমে শিশুরা প্রকৃতির সান্নিধ্যে থেকে বিজ্ঞানমনস্ক হয়ে উঠে সিমিন হোসেন রিমি এমপি       ডিমলায় ভিক্ষুকদের মাঝে শুকনা খাবার ও শীতবস্ত্র বিতরণ       দাদন ব্যবসায়ীর মারপিটে স্কুল শিক্ষকের মৃত্যু    

আজ শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২০, ০৬:২৩ অপরাহ্


নন্দীগ্রামে ধানের বাজারে ধস : হতাশ কৃষক

নন্দীগ্রামে ধানের বাজারে ধস : হতাশ কৃষক

বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলা ও পৌর শহরে কৃষকদের নিকট থেকে সরকারী ভাবে ধান কেনা শুরু হলেও এর প্রভাব এখনো বাজারে পড়েনি যার কারনে ধস নেমেছে ধানের বাজারে ফলে হতাশ হয়ে পড়েছে কৃষকরা। প্রাপ্ত তথ্যে জানা যায়, উপজেলা কৃষি অফিসের দেওয়া তালিকা অনুযায়ী মোট ২২ হাজার ৫শ ১০ জন কৃষকের মধ্যে ২ হাজার ৩শ ৪৫ জন কৃষকের বিভাজন করা হয়েছে। বিভাজন অনুযায়ী পৌরসভার ১৫৭ জন কৃষক, বুড়ইল ৪৪৩ জন, নন্দীগ্রাম সদর ৩৩৬ জন, ভাটরা ৩৯৫ জন, থালতা মাঝগ্রাম ৫২৬ জন, ভাটগ্রাম ৪৪৩ জনের মধ্যে গত ২৩শে নভেম্বর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে লটারী করা হয়। লটারীতে ১৪৮ জন কৃষকের নাম উঠে আসে। এসব কৃষকদের নিকট থেকে সরাসরি ধান সংগ্রহ করা হবে। অনুরুপভাবে পৌরসভা ও বিভিন্ন ইউনিয়নে বিভাজন থেকে লটারীর মাধ্যমে তালিকা তৈরী করে তাদের নিকট থেকে সরাসরি ধান সংগ্রহ করা হবে বলে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা জানিয়েছে। চলতি আমন মৌসমে সরকারী ভাবে ২৩৪৫ মেট্রিক টন ধান প্রতি কেজি ২৬ টাকা। কিন্তু অতি দু:খের বিষয় সরকারী ভাবে ধান ক্রয় শুরু হলেও বাজারে কোন প্রভাব পড়েনি ফলে বর্তমানে আমন মৌসমে কৃষকদের ধান বিক্রয় করতে অত্যন্ত ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে । যার কারনে কৃষকদের মাথার ঘাম পায়ে ফেলে উৎপাদিত ফসল পানির দামে বিক্রয় করতে বাধ্য হচ্ছে । অনেক কৃষক বাকিতে ধান বিক্রয় করে টাকা না গেয়ে ঘুরে ঘুরে হয়রানির শিকার হচ্ছে। কৃষক আবু জাফর, খয়বর, সেলিম, শাহিন, বকুল, ফারুক, জয়নাল আবেদিন এই প্রতিনিধিকে জনান, কৃষি উপকরনের যে ভাবে দাম বেড়েছে সে তুলনায় বাড়েনি কৃষি পণ্যের দাম এর ফলে ধারদেনা করে জমি চাষ সহ নিড়ানীর টাকা সার ওষধ বাঁকি নিয়ে আবাদ করার পর প্রতিমন ধান ৬শ থেকে ৬শ ৫০/ ৬০ টাকা বিক্রয় করে লোকশান গুনতে হচ্ছে যার কারনে রবি শস্য চাষ করতে পারছিনা ফলে জমি ফেলে রাখা ছাড়া আর কোন উপয় থাকছে না । সপ্তাহ খানেক আগেও ধানের বাজার ৭শ থেকে ৭শ ৫০ টাকা ছিলো। কিন্তু বর্তমানে ধানের বাজারে ধস নামায় কৃষকদের মাথায় হাত পড়েছে। বর্তমানে নন্দীগ্রামের বিভিন্ন্ মাঠে শত শত জমি রবি শস্য চাষ করা হয়নি । গত বছর এ মৌসমে কোন জমি পতিত ছিলনা । এ বিষয়ে উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকতার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, লটারীতে নাম উঠা কৃষকদের তালিকা অনুযায়ী সকলের সাথে যোগাযোগ করা হচ্ছে। তারা খাদ্য গুদামে ধান নিয়ে এলেই নেওয়া হবে।

শেয়ার করুন

পলাশবাড়ীতে সেচ্ছাসেবকলীগের শীতবস্ত্র বিতরণে কেন্দ্রীয় সভাপতি সম্পাদক

গাইবান্ধায় আমান উল্যাহ উচ্চ বিদ্যালয়ে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা

গাইবান্ধায় বোরো চাষে ব্যস্ত কৃষকরা

কুমিল্লার চান্দিনায় ধর্ষণের প্রতিবাদ করায় খুন হয় নাছির ।

তাড়াশে মৌলিক সাক্ষরতা প্রকল্পের ২য় পর্বের প্রশিক্ষণ উদ্বোধন

চান্দিনায় অজ্ঞাত নারীর মরদেহ উদ্ধার।

কালিয়াকৈরে শীর্ষ সন্ত্রাসী পিচ্ছি আকাশসহ গ্রেফতার ২

স্কাউটের মাধ্যমে শিশুরা প্রকৃতির সান্নিধ্যে থেকে বিজ্ঞানমনস্ক হয়ে উঠে সিমিন হোসেন রিমি এমপি

ডিমলায় ভিক্ষুকদের মাঝে শুকনা খাবার ও শীতবস্ত্র বিতরণ

দাদন ব্যবসায়ীর মারপিটে স্কুল শিক্ষকের মৃত্যু