শিরোনাম
  কবিতা নাম : পথ       পলাশবাড়ীতে যানজট নিরসনে মহাসড়ক পরিদর্শন করলেন পুলিশ সুপার প্রকৌশলী আবদুল মান্নান মিয়া বিপিএম       পলাশবাড়ীতে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান       গোবিন্দগঞ্জে নেশাগ্রস্থ ছোট ভাইয়ের ছুরিকাঘাতে বড় ভাই নিহত ঃ ঘাতক ছোট ভাই গ্রেফতার       গাইবান্ধা সদর থানা বিএনপির আহবায়ক কমিটি গঠন       গাইবান্ধা জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আলোচনা সভা ও খাদ্য বিতরণ অনুষ্ঠিত       ডিমলায় নোংরা ও দুর্গন্ধ পরিবেশ সৃষ্টি করায় তিন ব্যবসায়ীকে জরিমানা       নড়াইলে ইয়াবাসহ এক দল যুবুককে আটক করেছে পুলিশ       নড়াইলে নিজের জমি বিক্রি করার অপরাধে একটি পরিবার অবরুদ্ধ       যুক্তরাষ্ট্রের পরোয়ানা ইরানি ট্যাংকার জব্দে    

আজ সোমবার, ১৯ অগাস্ট ২০১৯, ১১:৪৬ পূর্বাহ্ন


নন্দীগ্রামে চলছে হাটের জায়গা দখল আর উচ্ছেদের খেলা

নন্দীগ্রামে চলছে হাটের জায়গা দখল আর উচ্ছেদের খেলা

 

নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি : বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলার রণবাঘা, পৌর শহরের বাসষ্ট্যান্ড এলাকা ও কুন্দার হাটের জায়গায় অবৈধ স্থাপনা মার্চ মাসে উচ্ছেদ করা হয়। কিন্তু আবার ঐসব জায়গা দখল করে স্থাপনা নির্মাণের মহোৎসব চললেও প্রশাসন রয়েছে নীরব। এদিকে সরকার হারাচ্ছে রাজস্ব। স্থানীয়রা জানান, রণবাঘা হাটটি উত্তরাঞ্চলের সর্ববৃহৎ পুরনো। সপ্তাহে সোমবার ও শুক্রবার এই হাট বসে। স্থানীয় কৃষকরা বছরজুরে ধান বেচাকেনা করে এখানে। অথচ এ জনগুরুত্বপূর্ণ হাটের মূল জায়গায় অর্ধশত অবৈধ দোকানঘর উচ্ছেদ করা হলেও সেখানে আবারও দোকানঘর তুলে দখল করছে প্রভাবশালীরা। এ কারণে হাটের জায়গা দিনদিন কমে গিয়ে ক্রেতা-বিক্রেতাকে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। আবার গরুর হাট স্কুল মাঠে বসায় স্কুলের ছাত্র/ছাত্রীরা রয়েছে বিপাকে। জানা গেছে, উপজেলার রনবাঘা হাটের জায়গা দখল করে অবৈধভাবে গড়ে তোলা অন্তত ১৪৫ টি স্থাপনা গত ৭ মার্চ উচ্ছেদ করা হয়। উচ্ছেদের চার মাস না যেতেই দখলদাররা আবার জায়গা দখল করছে। যে সব দোকান ও স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছিল সেগুলো আবার বসানো হয়েছে। কিছু দোকান ইট-বালু দিয়ে নির্মাণ করা হয়েছে। আর কিছু দোকান টিন বা ত্রিপল দিয়ে তৈরি করা হয়েছে। এ দিকে উপজেলার রনবাঘা, পৌর শহরের বাসষ্ট্যান্ড এলাকা ও কুন্দারহাটে মহাসড়কে সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগের জায়গা দখল করে অবৈধভাবে গড়ে তোলা অন্তত ২৫০ স্থাপনা জানুয়ারি মাসে উচ্ছেদ করা হয়। কিন্তু আবার সেইসব জায়গাও দখল করে স্থাপনা নির্মাণ চলছে। রনবাঘা বাজারের রাজু আহম্মেদ জানান, কিছু দিন আগে এ সব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হলেও স্থানীয় প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় রাতারাতি সেগুলো আবার বেদখল হচ্ছে। উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আরাফাত হোসেন বলেন, জনস্বার্থে হাটের জায়গা থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছিল। আবার কেউ দখল করলে খোঁজখবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রভাষক আব্দুল বারী বলেন, হাটের জায়গায় অবৈধ দোকানঘর উচ্ছেদ করা হলেও সেখানে আবারও দোকানঘর নির্মাণ করে দখল করছে প্রভাবশালীরা। তবে এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) কে জানানো হয়েছে।

শেয়ার করুন

কবিতা নাম : পথ

পলাশবাড়ীতে যানজট নিরসনে মহাসড়ক পরিদর্শন করলেন পুলিশ সুপার প্রকৌশলী আবদুল মান্নান মিয়া বিপিএম

পলাশবাড়ীতে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান

গোবিন্দগঞ্জে নেশাগ্রস্থ ছোট ভাইয়ের ছুরিকাঘাতে বড় ভাই নিহত ঃ ঘাতক ছোট ভাই গ্রেফতার

গাইবান্ধা সদর থানা বিএনপির আহবায়ক কমিটি গঠন

গাইবান্ধা জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আলোচনা সভা ও খাদ্য বিতরণ অনুষ্ঠিত

ডিমলায় নোংরা ও দুর্গন্ধ পরিবেশ সৃষ্টি করায় তিন ব্যবসায়ীকে জরিমানা

নড়াইলে ইয়াবাসহ এক দল যুবুককে আটক করেছে পুলিশ

নড়াইলে নিজের জমি বিক্রি করার অপরাধে একটি পরিবার অবরুদ্ধ

যুক্তরাষ্ট্রের পরোয়ানা ইরানি ট্যাংকার জব্দে