খেলা-ধুলা

নারী ক্রিকেটার চামেলীর স্বাস্থ্যের উন্নতি

ক্রীড়া ডেস্ক :

বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের অলরাউন্ডার চামেলী খাতুনের (২৭) চিকিৎসা চলছে। আগের চেয়ে ভালো আছেন তিনি। লিগামেন্টের ইনজুরি তাকে ক্রিকেট জগৎ থেকে ছিটকে দিতে চাইলেও চিকিৎসার পর মনে সাহস পাচ্ছেন।স্বপ্ন দেখছেন আবারও প্রতিপক্ষের ব্যাটসম্যানকে ঘায়েল করার। চামেলীর বাড়ি রাজশাহী নগরীর দরগাপাড়া এলাকায়। ২০১১ সালে পায়ের লিগামেন্ট ছিঁড়ে গেলে জাতীয় দল থেকে অবসর নেন। একসময়ের মাঠ কাঁপানো এই অলরাউন্ডার এখন চিকিৎসাধীন রয়েছেন। লিগামেন্ট ছিঁড়ে যাওয়ার পাশাপাশি মেরুদণ্ডের দুই হাড়ের ফাঁকে থাকা নরম ডিস্কগুলো নষ্ট হয়ে যাওয়ায় তার শরীরের পুরো ডান পাশ অবশ হয়ে যাওয়ার উপক্রম হয়েছিল। ভারতের ব্যাঙ্গালুরুর শীর্ষপর্যায়ের বেসরকারি অর্থপেডিক হাসপাতালে চামেলীর এক সপ্তাহ আগে ডান পায়ের লিগামেন্টের অস্ত্রোপচার হয়েছে। ডা. প্রশান্ত তেজওয়ানির বরাত দিয়ে তার পরিবারের সদস্যরা জানান, চামেলীর পায়ের কন্ডিশন ভালো হচ্ছে। পুরোপুরি সারতে ছয় মাস লাগবে। ছয় মাস পর পায়ে ভর দিয়েই চলাফেরা করতে পারবেন। এ সময়কালে তাকে স্ট্রেচারে ভর দিয়ে হাঁটতে হবে। লিগামেন্টের টিস্যুগুলো এই সময়ের মধ্যেই ঠিক হয়ে যাবে। জানা গেছে, মানসিকভাবে চামেলী আগের তুলনায় অনেক ভালো আছেন। প্রতিদিন হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় ড্রেসিং করার জন্য। ১০ ডিসেম্বর রাজশাহী ফেরার সম্ভাবনা রয়েছে। উল্লেখ্য, চামেলীর পায়ের লিগামেন্ট ছিঁড়ে যাওয়ায় দীর্ঘদিন থেকে অবস্থান করছিলেন রাজশাহী মহানগরীর দরগাপাড়ার জরাজীর্ণ একটি ঘরে। বিষয়টি বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশ হলে অনেকেই তার পাশে এসে দাঁড়ান। এ সময় তার চিকিৎসার সব দায়িত্ব নেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

Related Articles