নগর-মহানগরসারাদেশ

মালদহ নদী এখন মরা খাল

আদিতমারী সংবাদদাতা :

আদিতমারীর,অদূরে অবস্থিত লোহাকুচি সিমান্ত। সিমান্ত ঘেষা,ভারত-বাংলার মধ্যস্থলে এঁকেবেঁকে বয়ে যাওয়া ছোট্ট এই নদীটির নাম হচ্ছে মালদহ নদী। বর্তমান খরায় শুকিয়ে,নদীটির,প্রায় অধিকাংশ ক্ষেত্রেই দেখা যায়।কোথাও  হাঁটু পানি হঠাৎ কোথাও আবারও কোমর পর্যন্ত পানি রয়েছে। থেকে থেকে আবার একেবারেই শুকিয়ে ধূধূ বালুর চরে,রুপান্তরিত হয়েছে।খরার মৌসুমে এখন এই নদীটি বর্তমানে মরা খালে পরিনত হয়ে আছে।সরেজমিনে গিয়ে দেখা  যায়,অনেকেই দখল করে নদীর বুকে চাষ করেছে ইরি,আর বুরো ধান।অনেক জায়গায় আবার দেখা যায়,কোনটি নদী আর  কোনটি কৃষকের চাষের জমি,দেখে সহজেই বুঝে ওঠার মত নয়।তবে লোহাকুচি থেকে,শুরু করে মহিষতুলী ঘাটের পাড়,এবং ঝাড়ির ঝাড়,ফলিমারি,মরিচ বাড়ির চওড়া দিয়ে বয়ে যাওয়া প্রায় পুরো নদী জুড়ে,নদীর দুপাশে চাষ করা হয়েছে চলতি মৌসুমে ইরি আর বুরো ধান।মধ্যস্থলে বয়ে চলেছে নদীর পানি সেচের ড্রেনের ন্যায়।অনেকেই আবার বাধ দিয়ে মাছ ধরতে দেখা যায়। এভাবেই বর্তমান ভারত-বাংলার মধ্যস্থলে এঁকে-বেঁকে বয়ে যাওয়া অবহেলিত ছোট্ট এই মালদহ নদীটি শুকিয়ে খরায় দিনদিন মরা খালে পরিনত হয়েছে।

Related Articles