বগুড়ায় গ্রেফতার আতংকে ঘর ছাড়া বিএনপি নেতারা

বগুড়ায় গ্রেফতার আতংকে ঘর ছাড়া বিএনপি নেতারা

মাহফুজ আহম্মেদ

বগুড়া-৫ শেরপুর-ধুনট আসনে গ্রেফতার আতংকে বিএনপির নেতারা ঘর ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে। এতে নির্বাচনী প্রচারনায় তারা স্বতস্ফুর্তভাবে অংশ নিতে পারছেনা।সূত্রে জানা যায়, আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। বগুড়া-৫ শেরপুর-ধুনট আসনে মাঠ দাপিয়ে বেড়াচ্ছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামীলীগ। প্রচারণা ও গণসংযোগে ব্যস্ত সময় পার করেছন নেতাকর্মীরা। সেদিক থেকে পিছিয়ে রয়েছে আরেকটি বড় রাজনৈতিক দল বিএনপি। কারন হিসেবে বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা জানিয়েছেন তারা গ্রেফতার আতংকে রয়েছেন। উপজেলার ছোনকা বাজারে নাশকতা মামলায় কয়েকদিন আগে থানা বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম মিন্টু ও থানা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক হাসানুল মারুফ শিমুলকে আটকপূর্বক জেল হাজতে প্রেরন করে পুলিশ। তারপর থেকে বিভিন্ন নেতাদের আটকের তাদের বাড়িতে পুলিশ অভিযান চালায়। আর এই কারনেই তারা আটক এড়াতে নির্বাচনী মাঠ ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে।এ ব্যাপারে শহর বিএনপির সাবেক যুগ্ম আহবায়ক ও পৌর কাউন্সিলর জাহিদুর রহমান টুলু বলেন, আমার নামে কোন মামলা নেই তবে বিএনপির প্রার্থী গোলাম মোহাম্মাদ সিরাজ মনোনয়ন নিশ্চিত হওয়ার পর নেতাকর্মীদের নিয়ে একটি চা চক্র করেছিলাম। সেই অপরাধে গ্রেফতার আতংকে আমি আজ ঘর ছাড়া। এ ব্যাপারে উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম বাবলু বলেন, নির্বাচন কমিশন বলেছেন তফশিল ঘোষনার পর বিনা দোষে কাউকে আটক করা যাবেনা। অথচ আমার নামে যে মামলা আছে তার জামিন নেয়া আছে। তার পরেও আমাদের আটক করার জন্য বাড়িতে প্রতিদিন অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ।এ প্রসঙ্গে শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. হুমায়ুন কবীর বলেন, এজাহারভূক্ত ছাড়া কাউকে গ্রেফতার করা হচ্ছে না।

শেয়ার করুন