শিরোনাম

আজ বৃহস্পতিবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৩:২১ অপরাহ্


ক্ষমতার অহংকার পতনের কারণ : কাদের

ক্ষমতার অহংকার পতনের কারণ : কাদের

আওয়ামী লীগ এর সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ক্ষমতার অহংকার যেন পতনের কারণ না হয়।

মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে কক্সবাজার শহীদ দৌলত ময়দানে জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত কর্মী সভায় তিনি এ কথা বলেন।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘দুঃসময়ের কর্মীরাই হচ্ছে আওয়ামী লীগের প্রাণ। ত্যাগী কর্মীদের উপেক্ষা করলে আওয়ামী লীগ বাঁচবে না। আওয়ামী লীগ না বাঁচলে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ বাঁচবে না।’

‘আওয়ামী লীগ না বাঁচলে বাংলাদেশের গণতন্ত্র বাঁচবে না। আওয়ামী লীগ না বাঁচলে বাংলাদেশের উন্নয়ন বাঁচবে না। আওয়ামী লীগ না বাঁচলে বাংলাদেশের অর্জন হবে না। তাই যে কোনো মূল্যে আওয়ামী লীগকে বাঁচাতে হবে’ যোগ করেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘ক্ষমতার অহংকার পতনের কারণ যেন না হয়। ক্ষমতা যেন আমাদের নেতাকর্মীদের বিনয় করে, অহংকারী নয়। বিনয়ী যত হবেন, তত আপনি বড় হবেন। বিনয় হলে জনগণ আরও ভালোবাসবে।’

এ সময় তিনি বলেন, ‘বিএনপি তাদের দলে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে দাবি করলেও অনেক আগেই তা ভাটা পড়েছে। বিএনপির কাছে গণজোয়ার এখন দিবাস্বপ্ন। বিএনপির আন্দোলনেও ভাটা, নির্বাচনেও ভাটা। জোয়ার তারা দেখেননি, ভবিষ্যতেও দেখতে পাবে না।’

কক্সবাজারের মানুষের মনে অনেক দুঃখ-কষ্ট আছে উল্লেখ করে সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘মিয়ানমার থেকে বিতাড়িত রোহিঙ্গাদের জন্য সীমান্ত খুলে দিয়ে উদারতা ও মানবিকতা দেখিয়েছেন জননেত্রী শেখ হাসিনা। তবে এই নয় যে, রোহিঙ্গাদের আমরা স্থায়ীভাবে আশ্রয় দিয়েছি।’

তিনি বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের মানবিক কারণে সাহায্য দিয়েছিলাম, কিন্তু আজ আমরা মানবিক সংকটে রয়েছি। বিশেষ করে কক্সবাজারের মানুষেরা রোহিঙ্গাদের কারণে আজ অস্তিত্বের সংকটে ভুগছে। উখিয়া-টেকনাফের মানুষ পরবাসীর মতো হয়ে যাচ্ছে। এ জন্য আমাদের পরিবেশ, অর্থনীতি, পর্যটন ও জীববৈচিত্র্য আজকে হুমকির সম্মুখীন।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘সবকিছু বিবেচনা করে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়সহ চীন-ভারতকে মিয়ানমারের ওপর চাপ সৃষ্টি করা উচিত। আমরা আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে আহ্বান জানাবো- মিয়ানমারের ওপর চাপ আরও জোরদার করার জন্য। তাদের নাগরিকদের মিয়ানমারে ফিরিয়ে নেওয়ার জন্য।’

কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফার সভাপতিত্বে এতে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- কক্সবাজার জেলা সদর-রামু আসনের সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, মহেশখালী-কুতুবদিয়া আসনের সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য কানিজ ফাতেমা মোস্তাক, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান প্রমুখ।

শেয়ার করুন